করোনাভাইরাসের সংক্রমণের কারণে তাজিয়া মিছিল নিয়ে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) বিধি নিষেধ দেয়ায় প্রথমবারের মত শহরজুড়ে হয়নি তাজিয়া মিছিল।তবে পুরান ঢাকার হোসেনি দালান চত্বরে রবিবার (৩০ আগস্ট) সংক্ষিপ্ত ভাবে হয় এটি।পবিত্র আশুরার দিনে শিয়া মুসলিমরা ঐতিহ্যবাহী এ শোক মিছিল পালন করে থাকে।

পবিত্র আশুরা উপলক্ষে ঢাকার নাজিমুদ্দিন রোডের হোসেনি দালান চত্বরে এদিন সকাল থেকে ভক্তরা জড়ো হতে থাকেন।প্রবেশ পথের দুটি গেটে জীবাণুনাশক টানেল বসানো হয় যার মধ্য দিয়ে ভক্তদের চত্বরে প্রবেশ করতে হয়।সরকারের নির্দেশে তাজিয়া মিছিল মূল সড়কে বের করতে না পারায় ক্ষোভ ছিল ভক্তদের মনে।এদিকে ভিড় বাড়ার সাথে সাথে কমতে থাকে সামাজিক দূরত্ব। মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে হোসেনি দালান চত্বরেই। করোনা পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ইমামবাড়ায় অনুষ্ঠান করার কথা থাকলেও তা কেউ মানেননি।


আরো পড়ুন:-১. তাজিয়া মিছিলে শরীর রক্তাক্ত করা হারাম:আয়াতুল্লাহ খামেনি
২. আমিরাত-ইসরাইল চুক্তি নিয়ে ব্যাঙ্গচিত্র, জর্ডান কার্টুনিস্ট গ্রেফতার
৩. ২৩৮ দিন অনশনে থেকে তুর্কি আইনজীবীর মৃত্যু

দালান চত্বরে গিয়ে দেখা যায়, কালো কাবলি ও কালো পাঞ্জাবি পড়ে তরুণ,বয়স্করা শোক উদযাপন করতে এসেছে,বাদ যায়নি নারীরা তাদের পড়নে ছিলো কালো সালোয়ার কামিজ।পরে ইমামবাড়ার ভেতরে সাজানো হয় তাজিয়া।সকাল ১০টার দিকে শোকের স্মৃতি নিয়ে হোসেনি দালানের সীমানার ভেতরেই হয় তাজিয়া মিছিল।‘হায় হোসেন, হায় হোসেন’ করে বুক চাপড়ে শোকের মাতম করেন মিছিলে উপস্থিত ব্যক্তিরা।

পবিত্র আশুরা ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের নিকট অনেক তাৎপর্যপূর্ণ দিন।হিজরি ৬১ সনের এই দিনে মহানবী (স.) এর দৌহিত্র ইমাম হোসেন (রা.)ইরাকের কারবালা প্রান্তরে ইয়াজিদ বাহিনীর নিকট অন্যায় যুদ্ধে নিহত হয়।সুন্নী মুসলমানদের মতে মহান আল্লাহ আশুরার দিন পৃথিবী সৃষ্টি করেছেন এবং কোন এক আশুরার দিন কিয়ামত দিয়ে পৃথিবী ধ্বংস করবেন।

এর আগে গত বুধবার (২৬ আগস্ট) ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে সব ধরনের তাজিয়া ও শোক মিছিল নিষিদ্ধ ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)।করোনা পরিস্থিতির কারণে এ নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয় বলে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here