অনলাইন ডেস্কঃ চীনের দক্ষিণাঞ্চলীয় উপকূলীয় শহর ঝুহাইতে শুরু হয়েছে বৃহত্তম এয়ারশো। সপ্তাহব্যাপী এ প্রদর্শনীতে দেশটি প্রদর্শন করছে তার সর্বাধুনিক বিমান প্রতিরক্ষা প্রযুক্তি। পাশাপাশি রয়েছে দেশে তৈরি উন্নতমানের অস্ত্রশস্ত্র।

যখন প্রশান্ত মহগাসাগরীয় অঞ্চলে পশ্চিমা সামরিক আগ্রাসনের আশঙ্কা বাড়ছে তখন বেইজিং এই এয়ারশো’র আয়োজন করলো।

আজ মঙ্গলবার শুরু হওয়া এয়ারশোতে চীন তার সিএইচ-৬ ড্রোন প্রদর্শন করেছে। এ ড্রোন গোয়েন্দাবৃত্তি ও সামরিক অভিযানে ব্যবহার করা হয়। এছাড়া, সীমান্ত নজরদারি ও সমুদ্র পাহারায় ব্যবহৃত ডাব্লিউ জেড-৭ ড্রোন এবং জে-১৬ ডি জঙ্গিবিমান উড্ডয়ন করেছে। এরইমধ্যে ড্রোন দুটি চীনা সামরিক বাহিনীতে যুক্ত হয়েছে। জে-১৬ বিমান শত্রুর ইলেক্ট্রনিক যন্ত্রপাতিতে জ্যাম সৃষ্টি করতে পারে।

চলমান প্রদর্শনীর মধ্যদিয়ে চীনের বিমান-যুদ্ধের সামগ্রিক অগ্রগতি ফুটে উঠেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিশেষজ্ঞরা।

এই ইভেন্টের মাধ্যমে চীন উচ্চমাত্রার সামরিক শক্তি বিশ্ববাসীর কাছে তুলে ধরবে। তারা এটি দেখাতে চায় যে, তাদের দেশে উন্নতমানের সামরিক সরঞ্জাম তৈরির সক্ষমতা রয়েছে। সূত্রঃ বিডি প্রতিদিন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here