অনলাইন ডেস্কঃ ইউক্রেনে রুশ বাহিনীর হামলার প্রতিবাদে রাশিয়ায় ব্যবসা বন্ধ করে দেওয়ার কারণে মার্কিন বহুজাতিক ফাস্টফুড কোম্পানি ম্যাকডোনাল্ডসের লাখ লাখ ডলার লোকসান হয়েছে। একই সঙ্গে নষ্ট হয়েছে বহু খাবার। গতকাল শুক্রবার মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনের এক প্রতিবেদনে এই খবর জানানো হয়েছে।

গত মাসের শুরুর দিকে ম্যাকডোনাল্ডস ঘোষণা দেয়, ইউক্রেনে হামলার কারণে তারা রাশিয়ায় তাদের রেস্তোরাঁগুলো সাময়িক সময়ের জন্য বন্ধ করে দিচ্ছে। একই সঙ্গে ইউক্রেনেও রেস্তোরাঁ বন্ধ করে দিয়েছে তারা। এতে শেষ প্রান্তিকে (তিন মাসে) ম্যাকডোনাল্ডসের ১২ কোটি ৭০ লাখ ডলার লোকসান হয়েছে।

ম্যাকডোনাল্ডস জানিয়েছিল, রাশিয়ায় প্রায় ৮৫০টি রেস্তোরাঁ সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। তবে তারা রাশিয়ায় তাদের প্রায় ৬২ হাজার কর্মীর বেতন দিয়ে যাবে। কোম্পানিটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ক্রিস কেমকাইজিনস্কি বলেন, ‘দুই দেশে কর্মীদের বেতন ও বাড়তি সাহায্য দিয়ে যাব আমরা।

সিএনএনের ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রেস্তোরাঁ বন্ধ রাখলেও কর্মীদের বেতন ও বাড়তি আর্থিক সহায়তা দেওয়া ছাড়াও রেস্তোরাঁর ভাড়া ও সরবরাহের জন্য ২ কোটি ৭০ লাখ ডলার গুনতে হয়েছে। আর রেস্তোরাঁ বন্ধ করে দেওয়ার কারণে খাবারসহ অন্যান্য পণ্য নষ্ট হওয়ায় ১০ কোটি ডলার লোকসান হয়েছে।

গত বছরের শেষ নাগাদ রাশিয়ায় ম্যাকডোনাল্ডসের ৮৪৭টি রেস্তোরাঁ ছিল। এর সঙ্গে ইউক্রেনে আরও ১০৮টি রেস্তোরাঁ রয়েছে। ২০২১ সালে কোম্পানিটির মোট আয়ের ৯ শতাংশ এসেছিল এই দুই দেশ থেকে। তবে যুদ্ধের কারণে দুই দেশে রেস্তোরাঁ বন্ধ করে দেওয়ায় এ বছরের প্রথম তিন মাসে মুনাফা ২৮ শতাংশ কমেছে।

ইউক্রেনে যুদ্ধ শুরুর কারণে রাশিয়ায় একে একে ব্যবসা বন্ধের ঘোষণা দিচ্ছে বৈশ্বিক বৃহৎ কোম্পানিগুলো। প্রতিদিনই সে তালিকায় যোগ হচ্ছে নতুন নতুন নাম। এর আগে অ্যাপল, এইচঅ্যান্ডএম, স্যামসাং, বারবেরি, রোলস রয়েস, নেটফ্লিক্সসহ বিভিন্ন খাতের বেশ কিছু বৃহৎ কোম্পানি রাশিয়ায় ব্যবসা বন্ধের ঘোষণা দেয়। সূত্রঃ প্রথম আলো

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here