অনলাইন ডেস্কঃ আধুনিক জীবনযাপনে যেসব মরণব্যাধি প্রতিনিয়ত আমাদের ভাবনায় রাখে, তার মধ্যে অন্যতম হলো ক্যানসার। অস্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাস ও জীবনযাপন এমন মরণব্যাধির দিকে ঠেলে দেয় আমাদের। তাই যাপিতজীবনে নিয়ন্ত্রণ আনা ও ক্ষতিকর অভ্যাসগুলোতে বদল আনা যেমন প্রয়োজন, তেমনই প্রতিদিন খাদ্যতালিকাতেও রাখা উচিত এমন কিছু খাবার, যা শরীরে রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতা বাড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে ক্যানসার প্রতিরোধেও বিশেষ ভূমিকা রাখতে পারে।

অতিরিক্ত তেল-মসলাযুক্ত খাবার কমিয়ে খাদ্যতালিকায় রাখুন এমন পুষ্টিকর কিছু উপাদান, যা ক্যানসারের মতো মরণব্যাধি ঠেকাতে অনেকটাই সাহায্য করবে আপনাকে। পুষ্টিবিদদের মতে, এমন কিছু মসলা আছে, নিয়মিত খাদ্যতালিকায় রাখলে ক্যানসার প্রতিরোধে বেশ কার্যকর ভূমিকা নিতে পারে। চলুন জেনে নেওয়া যাক কোন কোন মসলা প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় রাখতেই হবে।

হলুদ: হলুদে কারকিউমিন নামক যৌগ থাকে, যা শক্তিশালী অ্যান্টি ইনফ্লেমেটরি উপাদান হিসেবে কাজ করে। বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গিয়েছে এই অ্যান্টি ইনফ্লেমেটরি বৈশিষ্ট্যই ক্যানসার প্রতিরোধে ইতিবাচক প্রভাব ফেলতে সক্ষম। তাই ক্যানসার থেকে বাঁচতে চাইলে খাদ্যতালিকায় অবশ্যই রাখুন হলুদ। ক্যানসার কোষের বৃদ্ধি রুখতেও এই মসলা বিশেষ উপকারী।গোলমরিচ: গোলমরিচে থাকে পিপেরিন যৌগ যা শরীরে অ্যান্টি অক্সিড্যান্ট হিসেবে কাজ করে। ব্রেস্ট ক্যানসার রিসার্চ অ্যান্ড ট্রিটমেন্ট জার্নালে প্রকাশিত একটি গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে, গোলমরিচ স্তনে ক্যানসার কোষের বৃদ্ধি রুখতে কার্যকরী।

ওরেগানো: ওরেগানোতে ক্যালভাকরোল নামক একটি যৌগ রয়েছে, যা প্রাকৃতিক জীবাণুনাশক হিসেবে কাজ করে এবং ক্যানসার কোষের বিস্তারকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারে। এতে প্রচুর পরিমাণে অ্যা়ন্টি অক্সিড্যান্ট রয়েছে, যা ক্যানসারের প্রতিরোধে সাহায্য করে।

রসুন: রসুনে থাকা অরগ্যান সালফার শরীরের প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে বিশেষ সাহায্য করে। টিউমার জাতীয় অসুখের প্রবণতা কমাতে সাহায্য করে রসুন। বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গিয়েছে প্রস্টেট ক্যানসার ঠেকাতে রসুনের বিকল্প নেই। সূত্রঃ ইত্তেফাক

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here