অনলাইন ডেস্কঃ ছেলের জন্য ফুটবল একাডেমির বাইরে অপেক্ষা করছিলেন মেক্সিকান অভিনেত্রী ও গায়িকা তানিয়া মেনদোসা। এমন সময় হঠাৎ গুলি করে পালিয়ে যায় মোটরবাইকে করে আসা দুই সন্ত্রাসী। খবর নিউইয়র্ক পোস্টের।

শুক্রবার (স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার) মেক্সিকোর মোরেলোস রাজ্যের কোয়ের্নোভাকা শহরে এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে।

প্রতিবেদন সূত্রে জানা যায়, ১১ বছর বয়সী ছেলেকে নিতে তানিয়া মেনদোসা নামের ওই অভিনেত্রী সেদিন অন্য অভিভাবকদের মতোই কোয়ের্নোভাকা স্পোর্টিং কমপ্লেক্সের বাইরে অপেক্ষা করছিলেন। সশস্ত্র দুই ব্যক্তি মোটরবাইকে সেখানে হাজির হয়ে তার ওপর হামলা চালায়। এদের মধ্যে একজন মেনেদোজাকে কয়েকবার গুলি করে। পরে তারা পালিয়ে যায়। হামলাকারীদের ধরতে পুলিশ অভিযান শুরু করেছে।

এর আড়ে ২০১০ সালে মেনদোসা, স্বামী ও ছয় মাসের সন্তানসহ তাদের গাড়ি ধোয়ামোছার ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান থেকে অপহৃত হয়েছিলেন। এরপর একাধিকবার তাকে মেরে ফেলার হুমকি দেয়া হয়েছে বলেও মোরেলোস রাজ্যের অ্যাটর্নি জেনারেলের কার্যালয়ে অভিযোগ করেছিলেন তিনি। তাকে হত্যার পেছনে কাদের হাত তা স্পষ্ট হওয়া যায়নি। এটি ফেমিসাইড (নারী হওয়ার কারণে খুন) কিনা, তা খতিয়ে দেখা হবে বলে একটি বার্তা সংস্থাকে জানিয়েছে অ্যাটর্নি জেনারেলে কার্যালয়।

প্রসঙ্গত, মেক্সিকোর সরকারি হিসাব অনুযায়ী, গত বছর দেশটিতে প্রতিদিন গড়ে ১০ নারীকে হত্যা করা হয়েছে। এর প্রায় এক তৃতীয়াংশই ফেমিসাইডের শিকার বলে জানিয়েছে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল। সূত্রঃ যমুনা নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here