অনলাইন ডেস্কঃ ভারত সরকার মাদার তেরেসার প্রতিষ্ঠিত দাতব্য সংস্থার বিদেশি অনুদান পাওয়ার লাইসেন্স স্থগিত করে দিয়েছে।

মিশনারিজ অব চ্যারিটি নামে এই সংস্থাটি পরিত্যক্ত শিশুদের জন্য হোম ছাড়াও অনেক স্কুল ও হাসপাতাল পরিচালনা করে আসছে। খবর বিবিসির।

খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের বড়দিন বা ক্রিসমাস ডেতে ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক ঘোষণায় ওই সংস্থাটির রেজিস্ট্রেশন বিষয়ে নতুন এ সিদ্ধান্তের কথা জানায়।

দেশটির কট্টর হিন্দুত্ববাদীরা এ সাহায্য সংস্থার বিরুদ্ধে সেখানকার লোকজনদের খ্রিস্টধর্মে ধর্মান্তরিত করার চেষ্টার অভিযোগ করে আসছিল।

সোমবার এক বিবৃতিতে সংস্থাটি তাদের লাইসেন্স নবায়ন আবেদন প্রত্যাখ্যাত হওয়ার কথা জানায় এবং বিষয়টি নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত তারা কোনো বিদেশি তহবিলসংক্রান্ত অ্যাকাউন্ট পরিচালনা করতে পারবে না।

এর আগে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি এই সাহায্য সংস্থা নিয়ে একটি টুইট করে সমালোচনা কুড়ান। তিনি লিখেছিলেন যে সরকার সংস্থাটির ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ফ্রিজ করেছে। কিন্তু সরকার এটি প্রত্যাখ্যান করেছে।

মেসিডোনিয়া থেকে আসা রোমান ক্যাথলিক মাদার তেরেসা ১৯৫০ সালে কলকাতাভিত্তিক এই সংস্থাটি প্রতিষ্ঠা করেছিলেন।

ক্যাথলিকদের সাহায্য সংস্থার মধ্যে এটি বিশ্বের অন্যতম সবচেয়ে সুপরিচিত একটি।

মানবিক কার্যক্রমের জন্য ১৯৭৯ সালে নোবেল শান্তি পুরস্কার পেয়েছিলেন মাদার তেরেসা। আর তার মৃত্যুর ১৭ বছর পর ২০১৬ সালে পোপ ফ্রান্সিস তাকে সেইন্ট বা সন্ত ঘোষণা করেন। সূত্রঃ যুগান্তর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here