অনলাইন ডেস্কঃ নিজের কাজের চেয়ে বিতর্ক দিয়েই সবসময় আলোচনায় থাকেন কঙ্গনা রানৌত। বিভিন্ন বিষয়ে স্পষ্টভাষী এই অভিনেত্রী এর আগেও বিতর্কিত মন্তব্য করে হয়েছেন সমালোচিত। তবে এবারে ভারতের স্বাধীনতা নিয়েই বেফাঁস মন্তব্য করে বসলেন কঙ্গনা। এর জেরে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৫০৪, ৫০৫, এবং ১২৪ এর ধারায় মামলা হয়েছে অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে। খবর ট্রিবিউন ইন্ডিয়ার।

এর আগে, সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে উপস্থিত হয়ে কঙ্গনা বলেন, ১৯৪৭ সালে স্বাধীনতার নামে যা এসেছিল, তা ভিক্ষা। ভারত প্রকৃত স্বাধীনতা পেয়েছে ২০১৪ সালে। অর্থাৎ নরেন্দ্র মোদি ক্ষমতা গ্রহণের পর’। কঙ্গনার এই মন্তব্যের পরই সরব হয়েছে রাজনৈতিক মহল থেকে শুরু করে সাধারণ জনগণও।

বিজেপির অনেকটাই ঘনিষ্ঠ কঙ্গনা, বিষয়টি জানেন সকলেই। এর জেরে রাজনৈতিক মহলের দাবি, রাফাল যুদ্ধবিমান কেনা নিয়ে নতুন কেলেঙ্কারি সামনে আসতেই বিষয়টিকে আড়াল করতে দলের অতি ঘনিষ্ঠ অভিনেত্রীকে দিয়ে এমন তত্ত্ব প্রচার করাচ্ছে বিজেপি। অনেকে আবার বলছেন, নিছক প্রচারণায় আসার জন্য এমন মন্তব্য করেছেন কঙ্গনা।

এদিকে, দেশের স্বাধীনতা নিয়ে কঙ্গনার এমন মন্তব্যে ক্ষীপ্ত সাধারণ মানুষ। নেটিজেনদের একাংশ সরাসরি কঙ্গনার যাবতীয় জাতীয় সম্মান এবং পদ্মশ্রী কেড়ে নেওয়ার দাবি তুলে সরব হয়েছেন।

এর জেরে, কঙ্গনার ওই মন্তব্য নিয়ে আপ নেত্রী প্রীতি শর্মা মেনন মুম্বাই পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেছেন। প্রীতির দাবি, উস্কানিমূলক ও দেশবিরোধী মন্তব্য করেছেন কঙ্গনা। ভারতীয় দণ্ডবিধির ৫০৪, ৫০৫, এবং ১২৪এ ধারায় কঙ্গনার বিরুদ্ধে মামলা রুজু করবার জন্য আবেদন জমা দিয়েছেন আপ নেত্রী। সূত্রঃ যমুনা নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here