চীনকে চাপে রাখতে গালওয়ানের ঘটনার পর বিরোধীয় দক্ষিণ চীন সাগরে যুদ্ধাজাহাজ মোতায়েন করেছে ভারত। দুই দেশের মধ্য চলমান আলোচনার মধ্যেই ভারতের এমন পদক্ষেপে আপত্তি জানিয়েছে চীন। এ খবর টাইমস অব ইন্ডিয়ার।

খবরে জানানো হয়, কৃত্রিম দ্বীপপুঞ্জ ও সামরিক উপস্থিতির মাধ্যমে চীনা বাহিনী ২০০৯ সাল থেকে ভারতের নৌবাহিনীর জাহাজগুলোর উপস্থিতি নিয়ে আপত্তি জানিয়ে আসছে।

সংবাদ সংস্থা এএনআইকে একটি সূত্র জানিয়েছে, লাদাখে চীনের সাথে সংঘর্ষে ভারতের ২০ সেনা নিহতের পর নৌবাহিনীর একটি যুদ্ধজাহাজ দক্ষিণ চীন সাগরে মোতায়েন করা হয়েছে। ওই এলাকায় পিপলস লিবারেশন আর্মির নৌবাহিনী বেশিরভাগ জলসীমা তার ভূখণ্ডের অংশ হিসাবে দাবি করে এবং যেকোনো বাহিনীর উপস্থিতিতে আপত্তি জানায়।

দ্রুত দক্ষিণ চীন সাগরে ভারতীয় যুদ্ধজাহাজ মোতায়েন করায় চীনা নৌবাহিনী ও নিরাপত্তায় নিয়োজিতরা আপত্তি জানিয়েছে। তারা বলছেন, দুই দেশের মধ্যে কূটনৈতিক পর্যায়ে চলমান আলোচনা মধ্যেই এমন যুদ্ধজাহাজের উপস্থিতি বিরোধপূর্ণ।

ইতিমধ্যেই দক্ষিণ চীন সাগরে আমেরিকার রণতরীর ও ডেস্ট্রয়ারের উপস্থিতি রয়েছে। ভারতীয় বাহিনী নিয়মিতভাবে আমেরিকার সমমানের যুদ্ধজাহাজগুলোর সাথে যোগাযোগ রক্ষা করে চলেছে বলে সূত্র জানিয়েছে।

দক্ষিণ চীন সাগরের একটি বিশাল অংশ কয়েক দশক ধরে দাবি করে আসছে চীন। সেখানে বিরোধীয় দ্বীপে কয়েকটি সামরিকঘাঁটি নির্মাণ করে আসছে চীন । এদিকে ফিলিপাইন, মালয়েশিয়া, তাইওয়ান, ভিয়েতনাম ও ইন্দোনেশিয়া তাদের কাছাকাছি সামুদ্রিক অঞ্চল দাবি করে আসছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here