অনলাইন ডেস্কঃ রাজধানীর কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে আজ শুক্রবার ভিড় অপেক্ষাকৃত কম। ট্রেনগুলোর বেশির ভাগই ছেড়েছে সময় মেনে। ভোগান্তি ছাড়া অনেকটা স্বস্তি নিয়ে পরিবারের সঙ্গে ঈদ করতে গ্রামের বাড়িতে যাচ্ছেন যাত্রীরা। আজ সকাল থেকে বেলা সাড়ে ১১টা পর্যন্ত কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন ঘুরে এ চিত্র দেখা গেছে।

স্টেশন কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, আজ সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত ২২টি ট্রেন বিভিন্ন গন্তব্যের উদ্দেশে ছেড়ে গেছে। অধিকাংশ ট্রেনই নির্দিষ্ট সময়ে ছেড়েছে।

নির্বিঘ্নে ঈদযাত্রা করতে পারায় স্বস্তি প্রকাশ করেছেন অনেক যাত্রী। শিডিউল মেনে ট্রেন ছাড়ায় তাঁরা স্টেশন কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কিশোরগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনে বসে ছিলেন বাবুল সরকার। তিনি প্রথম আলোকে বলেন, করোনার কারণে গত দুই ঈদে তিনি বাড়িতে যাননি। এবার মা-বাবার সঙ্গে ঈদ উদ্‌যাপন করতে বাড়িতে যাচ্ছেন। ট্রেনে টিকিট কাটা নিয়ে কিছুটা সমস্যা হয়েছিল। কিন্তু আজকের ব্যবস্থাপনায় তিনি সন্তুষ্ট।

শিডিউল অনুযায়ী কিশোরগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনটির বেলা পৌনে ১১টায় ছাড়ার কথা। বাবুল সরকারের সঙ্গে কথা শেষ করার কিছুক্ষণের মধ্যেই ট্রেনটি ছেড়ে যায়।

স্টেশনের ৩ নম্বর প্ল্যাটফর্মে যাত্রীদের জন্য অপেক্ষা করছিল সিলেটগামী আন্তনগর ট্রেন জয়ন্তিকা। শিডিউল অনুযায়ী ঠিক বেলা সোয়া ১১টায় ট্রেনটি স্টেশন ছাড়ে।

কমলাপুর রেলস্টেশনে সিকিউরিটি অপারেটরের দায়িত্ব পালন করছিলেন মো. আক্তার হোসেন। তিনি বলেন, এবার যাত্রীদের যেতে কোনো ভোগান্তি নেই। সবাই স্বস্তির সঙ্গে ট্রেনযাত্রা করতে পারছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here