অনলাইন ডেস্কঃ অবৈধভাবে সমুদ্রপথে ইউরোপে যাওয়ার সময় বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশের অন্তত ৫০০ অভিবাসন প্রত্যাশীকে আটক করেছে লিবিয়ার কোস্টগার্ড।

আলজাজিরার প্রতিবেদনে জানা যায়, আটক অভিবাসনপ্রত্যাশীদের মধ্যে বাংলাদেশ, সোমালিয়া, সুদান ও সিরিয়ার নাগরিক রয়েছেন। জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর এক বিবৃতিতে তথ্যটি নিশ্চিত করেছে।

সংস্থাটি বলছে, অভিবাসনপ্রত্যাশীদের বহনকারী নৌকাটি গত রোববার (৩ অক্টোবর) আটক হয়। এরপর সেই নৌকায় থাকা যাত্রীদের লিবিয়ার পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর জাভিয়ার একটি তেল পরিশোধনাগার পয়েন্টে নামিয়ে দেয়া হয়।

তবে আটক অভিবাসন প্রত্যাশীদের মধ্যে ঠিক কোন দেশের কতজন নাগরিক রয়েছেন, তা এখনো জানানো হয়নি।

এশিয়া ও আফ্রিকাসহ বিশ্বের বিভিন্ন অঞ্চলের মানুষ লিবিয়া হয়ে ইউরোপ যাওয়ার পথে আটক হওয়ার সবশেষ ঘটনাটি এটি। এর মাত্র একদিন আগে, অর্থাৎ গেল শনিবার ইউরোপ যাওয়ার পথে ৯০ অভিবাসনপ্রত্যাশীকে আটকা করে লিবিয়ার কোস্টগার্ড। এদের মধ্যে আট নারী ও তিনটি শিশুও ছিল। পরবর্তীকালে তাদের ত্রিপোলিতে ফেরত পাঠানো হয়।

ইউএনএইচসিআর জানিয়েছে, নৌকাটি থেকে দুই অভিবাসনপ্রত্যাশীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ ছাড়া সমুদ্রে নিখোঁজ রয়েছেন আরও কমপক্ষে ৪০ জন। সূত্রঃ যমুনা নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here