অনলাইন ডেস্কঃ জো বাইডেন ও শি জিনপিং বৈঠকের সপ্তাহ পার হতে না হতেই তাইওয়ান ইস্যুতে ফের চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে উত্তেজনা শুরু হয়েছে। তাইওয়ান প্রণালীতে মার্কিন যুদ্ধজাহাজ পরিচালনার মধ্যদিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ঝুঁকি বাড়াচ্ছে বলে অভিযোগ চীনের।

যুক্তরাষ্ট্রের যেকোনো হুমকি এবং উসকানি মোকাবিলার জন্য প্রয়োজনীয় সব পদক্ষেপ নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছে বেইজিং। এদিকে, তাইওয়ানের ওপর চীনের অর্থনৈতিক হস্তক্ষেপ মোকাবিলার বিষয়ে পদক্ষেপ নিয়ে আলোচনায় বসেছেন যুক্তরাষ্ট্র ও তাইওয়ান।

তাইওয়ান প্রণালীতে যুক্তরাষ্ট্রের যুদ্ধজাহাজ পরিচালনার বিষয়ে তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে চীন। মঙ্গলবার চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র অভিযোগ করে বলেন, তাইওয়ান প্রণালীতে মার্কিন যুদ্ধজাহাজ অঞ্চলটির শান্তি ও স্থিতিশীলতা নষ্ট করছে। ঝগড়া ও উসকানি বন্ধ করার আহ্বান জানিয়ে মুখপাত্র বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে সৃষ্ট যেকোনো হুমকি এবং উসকানি মোকাবিলা করার জন্য প্রয়োজনীয় সব পদক্ষেপ নেবে বেইজিং। জাতীয় সার্বভৌমত্ব এবং ভৌগোলিক অখণ্ডতা রক্ষার বিষয়ে চীন কোনো আপস করবে না বলেও হুঁশিয়ারি দেন তিনি।

তিনি বলেন, তাইওয়ান প্রণালীতে যুক্তরাষ্ট্র যে যুদ্ধজাহাজ পরিচালনা করছে চীন এটি গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করছে। তারা তাদের শক্তি প্রদর্শনের মাধ্যমে উসকানি দিচ্ছে। এটা স্বাধীনতা দেখানোর বিষয় না প্রকৃতপক্ষে তারা এখানে হস্তক্ষেপ করছে। এ অঞ্চলের শান্তি স্থিতিশীলতা নষ্ট করছে।

তবে মার্কিন নৌ বাহিনীর দাবি, রুটিন অনুযায়ী তাইওয়ান প্রণালীতে যুদ্ধজাহাজ ইউএসএস মিলিয়াস পরিচালনা করছে তারা। তাইওয়ান প্রণালীতে যুদ্ধজাহাজ পরিচালনার মধ্যদিয়ে সমুদ্রে জাহাজ চলাচলের স্বাধীনতার বিষয়টি তুলে ধরা হয়েছে বলেও দাবি করে যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবং চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের মধ্যে ভার্চুয়াল শীর্ষ সম্মেলন অনুষ্ঠানের কয়েকদিনের মধ্যেই তাইওয়ান প্রণালীতে মার্কিন যুদ্ধজাহাজ পরিচালনা করে যুক্তরাষ্ট্র। আর এ নিয়েই আবারো দ্বন্দ্বে জড়ালো দেশ দুটি।

একইদিন, অর্থনৈতিক বিষয়ক একটি আলোচনায় বসেন তাইওয়ান ও যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধিরা। এ সময় চিপ সঙ্কটের পাশাপাশি তাইওয়ানের ওপর চীনের অর্থনৈতিক জোরজবরদস্তি থেকে মুক্তি বিষয়ক আলোচনা করেন তারা। সূত্রঃ সময় নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here