অনলাইন ডেস্কঃ নারী হয়েও ছেলেদের ফুটবলে সহকারী রেফারির দায়িত্ব পালন করেছেন সালমা আক্তার।  ঘরোয়া ফুটবলের সর্বোচ্চ পর্যায়ে প্রথম নারী রেফারি হিসেবে ইতিহাস গড়লেন তিনি।

সোমবার কমলাপুর বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে উত্তর বারিধারা-আরামবাগ ক্রীড়া সংঘের মধ্যকার ম্যাচে সহকারী রেফারির দায়িত্ব পালন করেন সালমা। ম্যাচটিতে আরামবাগ ১-০ গোলে হেরে লিগ থেকে অবনমিত হয়।

খেলা শেষে ২৩ বছর বয়সী এই রেফারি বলেন, শুরুতে একটু নার্ভাস লাগছিল। প্রথমবার বলেই হয়ত এরকম লাগছিল। কিন্তু কিক অফের বাঁশি বাজতেই সব কিছু স্বাভাবিক হয়ে যায়।

নেত্রোকোনা থেকে উঠে এসে ইডেন কলেজ থেকে স্নাতক পাশ করে রেফারিংকে পেশা হিসেবে নেওয়া সালমা বলেন, আসলে রেফারিংয়ে আসার শুরুর দিক থেকে পরিবার, বন্ধু-বান্ধব সবার কাছ থেকে সহযোগিতা পেয়েছি। ফলে এগুলোর সঙ্গে মানিয়ে নিতে খুব একটা কষ্ট হয়নি।

সালমা আরও বলেন, আমি আসলে ফুটবল খেলার সুযোগ সেভাবে পাইনি। কিন্তু ফুটবলের সঙ্গে থাকতে চেয়েছি সবসময়। এ কারণেই রেফারিংয়ে আসা। আমাদের ওখানে মেয়েদের ফুটবল দল ছিল না, ফলে খেলার সুযোগ মেলেনি। সূত্রঃ যুগান্তর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here