অনলাইন ডেস্কঃ সম্প্রতি পাকিস্তানে সিন্ধু প্রদেশের অন্যতম প্রধান সংগঠন হারি ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন (এইচডব্লিউএ) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, প্রায় ৬৪ লাখ শিশু স্কুল থেকে ঝরে পড়ে অমানবিক শ্রমে নিয়োজিত রয়েছে। এছাড়াও সিন্ধ প্রদেশে শিশু শ্রমের বিরুদ্ধে আইন বাস্তবায়ন না করায় এইচডব্লিউএ সরকার এবং এজেন্সিগুলির সমালোচনা করেছে।

করোনা মহামারিতে কর্মজীবী শিশু এবং তাদের পরিবারের সমস্যাকে আরও প্রকট আকার ধারণ করেছেন। দ্য নিউজ ইন্টারন্যাশনাল জানিয়েছে, প্রায় ১২.৫ মিলিয়ন শিশু কারখানা, ক্ষেত, পরিবার এবং খনি এমনকি চুড়ি তৈরির মতো বিপজ্জনক খাতে কাজ করছে।

এদিকে, এইচডব্লিউএ তুলে ধরেছে, ১৫ বছরের কম বয়সী শিশুরা চুড়ি, ইটভাটা, মৎস্য, অটো ওয়ার্কশপ, তুলা বাছাই এবং মরিচ বাছাইয়ের মতো কাজ করে। সেখানে তারা শোষণ ও নির্যাতনের শিকার হলেও শ্রম পরিদর্শক, সমাজ কল্যাণ কর্মকর্তা এবং শিশু সুরক্ষা কর্মকর্তারা তাদের কাছে পৌঁছায় না। সূত্রঃ বিডি প্রতিদিন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here