অনলাইন ডেস্কঃ ডেঙ্গু পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে ভারতের নয়াদিল্লিতে। চলতি বছর রাজধানীতে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে এক হাজার। যার মধ্যে অক্টোবরেই শনাক্ত হয়েছে ৬৬৫ জন। যা বিগত তিন বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ। অতিরিক্ত রোগীর চাপ সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে হাসপাতালগুলো।

প্রায় এক মাস ধরেই আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে নয়াদিল্লির ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা। সোমবার (২৫ অক্টোবর) প্রকাশিত রিপোর্ট অনুযায়ী চলতি বছর এ পর্যন্ত ১ হাজার ৬ জন ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত হয়েছে ভারতের রাজধানীতে।

গত সেপ্টেম্বরে যেখানে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ২১৭ জন। সেখানে ১৭ থেকে ২৩ অক্টোবর পর্যন্ত এক সপ্তাহেই শনাক্ত হয়েছে ২৮৩ রোগী।

করোনাভাইরাসের প্রভাবে আগে থেকেই ভঙ্গুর নয়াদিল্লির স্বাস্থ্যসেবা। এখন আরও বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে ডেঙ্গুর দাপটে। প্রতিনিয়ত বাড়ছে রোগীর চাপ। সীমিত লোকবল দিয়ে পর্যাপ্ত সেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছে হাসপাতালগুলো।

নয়াদিল্লির স্বামী দয়ানন্দ হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. রজনী খেরওয়াল বলেন, এই হাসপাতালে ভর্তি হওয়া রোগীদের ৫০ শতাংশই এখন ডেঙ্গু আক্রান্ত। ১০০ বেডের ডেঙ্গু ওয়ার্ড তৈরি করেছিলাম। তবে এখন সার্জারি ওয়ার্ডকেও পরিণত করা হয়েছে ডেঙ্গু ওয়ার্ডে। এছাড়াও ৪০টি বেড যুক্ত করেছি।

ভারতে ডেঙ্গুর পাশাপাশি বেড়েছে মশাবাহিত অন্যান্য রোগও। এ পর্যন্ত ১৫৪ জন ম্যালেরিয়া ও ৭৩ জন চিকনগুনিয়া রোগী শনাক্ত হয়েছে দেশটির রাজধানীতে। সূত্রঃ যমুনা নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here