চীন-ভারতের মধ্যে বেশ কয়েক মাস ধরেই লাদাখের বিরোধপূর্ণ সীমান্তে লড়াই চলছে। আর এই চলমান উত্তেজনার সুযোগ নিতে পারে পাকিস্তান। গত বৃহস্পতিবার (৩ সেপ্টেম্বর) ভারতের চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ বিপিন রাওয়াত এক সেমিনারে বেইজিং-ইসলামাবাদের যৌথ ‘হামলার’ আশঙ্কা জানায়। এর পাশাপাশা তিনি হুঁশিয়ার করে জানিয়েছেন, তেমন কিছু ঘটলে ভারত কঠোর জবাব দিতে প্রস্তুত আছে।

বৃহস্পতিবার (৩ সেপ্টেম্বর) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমসের এক প্রতিবেদনে এমনটা বলেছিলেন তিনি।

তিনি আরও বলেন, ভারত দ্বি-মুখী চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করতে যথেষ্ট সক্ষম। তিনি এই চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করার জন্য কিছু কৌশলগত নিতীও উল্লেখ করেন। প্রথমত প্রাইমারি ও সেকেন্ডারি ফ্রন্ট নির্ধারণ করে হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। এরই মধ্যে ভারত সেনা প্রধান নারাভানে লাদাখ পরিস্থিতির রিভিড করতে দুই দিনের সফরে লে-তে গিয়েছেন।

তিনি পাকিস্তানকে হুঁশিয়ার করে বলেন, যদি সীমান্তে কোনও হুমকি তৈরি হয়, তবে পাকিস্তান এটার সুযোগ নিতে পারে, এবং ভারতের জন্য সৃষ্টি করতে পারে কঠিন সংকট। পাকিস্তান যেন কোনকৌশলেই এমন কুতৎপরতা চালাতে না পারে তার জন্য আমরাও প্রস্তুত রয়েছি। যদি পাকিস্তান এমন কিছু করে, তাহলে চরম মাশুল দিতে হবে তাদের। তারা এরকম অপচেষ্টা চালালে ইসলামাবাদের কপালে চরম দুর্ভোগ রয়েছে।’

ভারতের সেনাপ্রধান নারাভানেও লাদাখ পরিদর্শনের পর বলেন, প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় পরিস্থিতি বর্তমানে ‘সামান্য উত্তপ্ত’। তবে জওয়ানরা যেকোনো চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে প্রস্তুত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here