অনলাইন ডেস্কঃ আফগানিস্তানে তালেবানের পক্ষ থেকে ঘোষিত অন্তর্বর্তী সরকার আগামী ১১ সেপ্টেম্বর শপথ নিতে যাচ্ছে। তালেবানের একটি ঘনিষ্ঠ সূত্রের বরাত দিয়ে রুশ বার্তা সংস্থা স্পুৎনিক এ খবর জানিয়েছে।

সূত্রটি বলেছে, শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়ার জন্য এখন পর্যন্ত রাশিয়া, চীন, কাতার, তুরস্ক, পাকিস্তান ও ইরানকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

তালেবানের একজন সিনিয়র সদস্য স্পুৎনিককে বলেছেন, “আফগানিস্তানের নয়া অন্তর্বর্তী সরকারের শপথ গ্রহণের জন্য ১১ সেপ্টেম্বর দিন ধার্য করা হয়েছে।”

তবে যেসব দেশকে আমন্ত্রণ জানানোর কথা তালেবান বলেছে সেসব দেশের পক্ষ থেকে এ সম্পর্কে এখন পর্যন্ত কোনও মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

গত আগস্ট মাসের গোড়ার দিকে তালেবান আফগানিস্তানের সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে হামলা জোরদার করে এবং ১৫ আগস্ট তারা রাজধানী কাবুল দখল করে নেয়। এর প্রায় তিন সপ্তাহ পর মঙ্গলবার রাতে নিজেদের অন্তর্বর্তী মন্ত্রিসভা ঘোষণা করে তালেবান।

২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর আমেরিকার নিউ ইয়র্ক শহরের বিশ্ব বাণিজ্য কেন্দ্রের টুইন টাওয়ারে যাত্রীবাহী বিমান নিয়ে হামলা চালায় একদল সন্ত্রাসী। ওই ঘটনায় কয়েক হাজার নিরীহ মানুষ প্রাণ হারান।

এ ঘটনার জন্য মার্কিন সরকার জঙ্গি গোষ্ঠী আল-কায়েদাকে দায়ী করে এই গোষ্ঠীর নেতা ওসামা বিন লাদেনকে আমেরিকার হাতে তুলে দেওয়ার জন্য তৎকালীন তালেবান সরকারের প্রতি আহ্বান জানায়। কিন্তু তালেবান নেতৃত্ব তখন ঘোষণা করে, তারা বিন লাদেনকে আশ্রয় দিয়েছেন বলে কিছুতেই তাকে আমেরিকার হাতে তুলে দেবেন না।

এরপর ২০০১ সালেরই ৭ অক্টোবর আফগানিস্তানে হামলা চালিয়ে কয়েকদিনের মধ্যে দেশটি দখল করে নেয় আমেরিকা। পতন ঘটে তালেবান সরকারের। ওই ঘটনার ২০ বছর পর গত ৩১ আগস্ট আফগানিস্তান থেকে সমূলে উৎখাত হয়ে যায় আমেরিকা।

তবে অন্তর্বর্তী সরকারের শপথ গ্রহণের দিন হিসেবে তালেবান উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে ১১ সেপ্টেম্বরকে বেছে নিয়েছে কিনা তা জানা যায়নি। সূত্রঃ বিডি প্রতিদিন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here