১০ই মহাররম বা আশুরার দিনে শোক পালনের নিমিত্তে শরীর রক্তাক্ত করা হারাম বলে ফতোয়া দিয়েছে ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় ও রাজনৈতিক নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনি।একই সাথে গোপনেও এ কাজ করতে নিষেধ করেন তিনি।

ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনির উদ্ধৃতি দিয়ে বার্তা সংস্থা ইরনা জানায়, পোশাক খুলে বা খালি-গা হয়ে এ ধরনের কাজ শোক-প্রকাশ নয় বরং শোক-প্রকাশের ধ্বংস সাধন। এহেন শোক প্রকাশের কারণে ইসলামের শত্রুরা এই মহান ধর্ম সম্পর্কে নানা ধরনের অপপ্রচার চালানোর সুযোগ নিচ্ছে বলে ইরানের শীর্ষস্থানীয় অনেক আলেম মনে করেন।

পবিত্র আশুরা ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের নিকট অনেক তাৎপর্যপূর্ণ দিন।এদিন মহানবী (স.) এর দৌহিত্র ইমাম হোসেন (রা.)ইরাকের কারবালা প্রান্তরে ইয়াজিদ বাহিনীর নিকট অন্যায় যুদ্ধে নিহত হয়।সুন্নী মুসলমানদের মতে মহান আল্লাহ আশুরার দিন পৃথিবী সৃষ্টি করেছেন এবং কোন এক আশুরার দিন কিয়ামত দিয়ে পৃথিবী ধ্বংস করবেন।

উল্লেখ্য, পবিত্র আশুরা উপলক্ষ্যে তাজিয়া মিছিলে ছোরা, কাঁচি, তরবারি,ব্লেড দিয়ে অনেকে নিজের শরীর রক্তাক্ত করেন।পবিত্র আশুরা বাংলাদেশেও ভাব গাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে পালিত হয়।এদিন পুরান ঢাকার হোসেনি দালান থেকে সর্ববৃহৎ তাজিয়া মিছিল বের হয়।এছাড়াও মোহাম্মদপুরের শিয়া মসজিদ, মিরপুর বিহারী ক্যাম্প থেকে ঐতিহ্যবাহী তাজিয়া মিছিল বের হয়।

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here