অনলাইন ডেস্কঃ গ্রীষ্মের শুরুতেই তীব্র গরমে হাঁসফাঁস অবস্থা। ঘরে-বাইরে খানিকটা স্বস্তি পেতে কারও ভরসা হাত পাখা, কারও ফ্যানের বাতাস আবার কারও কুলার কিংবা এসিতে। তবে গরম থেকে রেহাই পাওয়ার কিছু প্রাকৃতিক উপায়ও রয়েছে। অন্দরমহলে এমন কিছু গাছ রাখতে পারেন, যা বাড়ির আবহাওয়া ঠাণ্ডা করতে সাহায্য করে।

স্নেক প্ল্যান্ট: এই গাছের মধ্যে পানির পরিমাণ বেশি থাকে। এর থেকে গরম হাওয়ার বদলে ঠাণ্ডা হাওয়া নির্গত হয়। আবার বাতাসে আর্দ্রতাও বজায় থাকে। স্নেক প্ল্যান্ট বাড়ির অক্সিজেন লেভেল বাড়াতে এবং বাতাস দূষণমুক্ত রাখতেও ভূমিকা রাখে।

উইপিং ফিগ: এই গাছগুলো বাড়ির ভেতরেই বেশ ভালো হয়। এর ছোট ছোট পাতা বাতাসে দোলা লাগলে বেশ ভালো লাগে দেখতে। আবার এই গাছ বাড়ির তাপমাত্রা কমাতেও সাহায্য করে। তবে গাছটি এমন জায়গায় রাখবেন যেখানে সূর্যের তাপ সরাসরি এসে পড়ে।

রাবার গাছ: এই গাছের ক্ষেত্রেও একই বিষয় কাজ করে। রাবার গাছের পাতা বেশ মোটা হয়। তাতে পানির পরিমাণ বেশি। ফলে বাতাসে আর্দ্রতা বজায় থাকে।

চাইনিজ এভারগ্রিন : এই গাছের পাতাগুলো ঘরের ভেতরে ভিন্ন ইকোসিস্টেম তৈরি করতে সাহায্য করে। এর বাহারি পাতা যেমন দেখতে ভালো লাগে, তেমনই তাপমাত্রা কমাতেও সাহায্য করে।

পামস: এর সরু সরু পাতা মিলে ঘরের মধ্যেই একটা বুনো পরিবেশের সৃষ্টি করে। এটা মানসিকভাবে গরমের অনুভব কমিয়ে দেয় বলেই মনে করেন গবেষকরা। এ গাছ বাড়িতে রাখলে ক্ষতির তুলনায় উপকারই বেশি। আবার দেখতেও বেশ সুন্দর দেখায়। সূত্রঃ ইত্তেফাক

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here