অনলাইন ডেস্কঃ খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের অবনতি হলে বিএনপিই দায়ী থাকবে বলে জানিয়েছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

সোমবার সচিবালয়ে সমসাময়িক বিষয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এ মন্তব্য করেন।

খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে এক প্রশ্নে হাছান মাহমুদ বলেন, খালেদা জিয়াকে দেশে সর্বোচ্চ চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তিনি যেভাবে, যে হাসপাতালে চেয়েছিলেন সেভাবে তার চিকিৎসা হচ্ছে। তিনি শাস্তিপ্রাপ্ত আসামি, তার চিকিৎসা হওয়া উচিত ছিল সরকারের তত্ত্বাবধানে সরকারি কোনো হাসপাতালে। দণ্ড পাওয়া আসামি হওয়া সত্ত্বেও খালেদা জিয়া মুক্তভাবে জীবনযাপন করছেন, পরিবার-পরিজনের সঙ্গে থাকছেন। যেহেতু বিএনপির তত্ত্বাবধানে তার চিকিৎসা হচ্ছে, এখন যদি খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের কোনো হানি হয়, সে জন্য বিএনপি এবং তার চিকিৎসার দায়িত্বে যারা আছেন তারাই দায়ী থাকবেন। কারণ, সরকারের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসা হচ্ছে না।

এসময় দেশে এখন আওয়ামী লীগের বিকল্প কোনো রাজনৈতিক দল নেই বলেও মন্তব্য করেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, দেশে এখন আওয়ামী লীগের বিকল্প কোনো রাজনৈতিক দল নেই। কারণ, দলীয় প্রতীকে অংশ না নিলেও ইউপি নির্বাচনে বিএনপি ও জাতীয় পার্টির নেতাদের কাছে নয়, আওয়ামী লীগের ‘বিদ্রোহী’ প্রার্থীদের কাছেই হেরেছেন ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থীরা।

ইউপি নির্বাচন নিয়ে এক প্রশ্নে তিনি বলেন, দ্বিতীয়বারের মতো ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন দলীয় প্রতীকে হচ্ছে। চতুর্থ ধাপের নির্বাচনের পর দেখা যাচ্ছে বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই আওয়ামী লীগ জয়লাভ করেছে। এর পরের অবস্থান হচ্ছে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহীদের। যারা দলীয় মনোনয়ন পাননি, আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পদে আছেন এবং নির্বাচন করেছেন ব্যাপকসংখ্যক, তারাও জয়লাভ করেছেন।

হাছান মাহমুদ আরও বলেন, বিএনপি দলীয়ভাবে নির্বাচন না করলেও স্বতন্ত্রভাবে করেছে। বিএনপি ঘরানার প্রার্থীদের জয়লাভের সংখ্যা হাতে গোনা। জাতীয় পার্টির ক্ষেত্রে সেটি আরও কম। এতে প্রমাণিত হয় দেশে আওয়ামী লীগের বিকল্প আওয়ামী লীগই, অন্য কোনো বিকল্প নেই। ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অন্তত সেটিই উঠে এসেছে। সূত্রঃ যুগান্তর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here