অনলাইন ডেস্কঃ তুরস্ক ৩ হাজার দাঙ্গা পুলিশ কাতারে পাঠানোর পরিকল্পনা করছে।

তুর্কি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুলেইমান সোইলু বৃহস্পতিবার এ ঘোষণা দেন। খবর ডেইলি সাবাহর।

সোইলু বলেন, উপসাগরীয় দেশ কাতারে ২০২২ বিশ্বকাপ উপলক্ষ্যে তুরস্কের দাঙ্গা পুলিশ ইউনিটের তিন হাজার সদস্যকে পাঠানো হবে। এ সংখ্যা আরও বাড়ানো হতে পারে।

এরদোগানের কাতার সফরের দুইদিন পর আঙ্কারায় তুরস্কের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, প্রেসিডেন্টের কাতার সফরের সময় বিশ্বকাপের নিরাপত্তা সংক্রান্ত একটি নতুন চুক্তি সই হয়।

সোইলু বলেন, তুরস্ক একটি গুরুতর দায়িত্ব কাঁধে তুলে নিয়েছে এবং ২০১৭ সাল থেকেই তারা কাতারের কর্মকর্তাদের সঙ্গে এ বিষয়ে আলোচনা করছে। প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগানের পরামর্শে এ আলোচনা চলছিল।

‘ইউরোপের বহু দেশ কাতারে নিরাপত্তা সংক্রান্ত সেবা দেওয়ার জন্য আবেদন জানিয়েছিল। কিন্তু কাতার এ কাজের জন্য আমাদের বেছে নিয়েছে। এ প্রক্রিয়ার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের ধন্যবাদ’, যোগ করেন তুর্কি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

সোইলু বলেন, তিন হাজারের বেশি দাঙ্গা পুলিশের সদস্য পাঠানোর সক্ষমতা তুরস্কের রয়েছে। এ বিষয়ে আলোচনা চলছে। তুরস্ক ইতোমধ্যে কাতারের নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের প্রশিক্ষণ দিয়েছে। এ ছাড়া তুরস্কে ও কাতারে দোহার নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে।

তুরস্কের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে তুরস্কের নিরাপত্তা বাহিনীর একজন  সমন্বয়ক এবং ৪০ জনের বেশি নিরাপত্তা উপদেষ্টা থাকবেন। তুরস্ক নিরাপত্তার জন্য কিছু প্রশিক্ষিত কুকুরও পাঠাবে। আমরা আশা করছি দায়িত্ব ঠিকমতো পালন করতে পারব। এটি খুবই আনন্দের খবর যে, এত বড় একটি প্রতিযোগিতার নিরাপত্তা দেওয়ার দায়িত্ব আমাদের দেওয়া হয়েছে।

২০২২ সালের ফুটবল বিশ্বকাপের পর্দা উন্মোচন হবে ২১ নভেম্বর কাতারের রাজধানী দোহা সিটির আল বাইত স্টেডিয়ামে। স্থানীয় সময় দুপুর ১টায় প্রথম ম্যাচ শুরু হবে।

৩২ দলের এই বৈশ্বিক টুর্নামেন্ট শেষ হবে মাত্র ২৮ দিনেই। অর্থাৎ ফাইনাল ম্যাচটি হবে একই বছরের ১৮ ডিসেম্বর লুসাইল স্টেডিয়ামে। সূত্রঃ যুগান্তর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here