অনলাইন ডেস্কঃ তাইওয়ানকে নিজ দেশের অবিচ্ছেদ্য অংশ হিসেবে ঘোষণা করলেন চীনের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ওয়েই ফেংহে। এ সময় তিনি বলেন, নিজের স্বার্থ রক্ষা করার ক্ষেত্রে চীনের প্রতিরক্ষা সক্ষমতা কতটা শক্তিশালী তা যেন ওয়াশিংটন পরীক্ষা করতে না আসে।

বুধবার মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী লয়েড অস্টিনের সঙ্গে এক টেলিফোনালাপে এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন ওয়েই ফেংহে।

চীনা প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন, তাইওয়ান চীনের অংশ এবং এই বাস্তবতায় পরিবর্তন আনার সাধ্য কারও নেই।

ফেংহে বলেন, চীনা সেনাবাহিনী যেকোনও মূল্যে দেশের অখণ্ডতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষা করবে এবং এ কাজে এই বাহিনীর দক্ষতাকে উপেক্ষা করা আমেরিকার উচিত হবে না।

তিনি আরও স্পষ্ট করে বলেন, অগ্রহণযোগ্য উপায়ে তাইওয়ান সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করা হলে তা ওয়াশিংটন-বেইজিং সম্পর্কের ওপর ধ্বংসাত্মক প্রভাব ফেলবে। তিনি চীনকে হুমকি দেওয়ার উপকরণ হিসেবে ইউক্রেন সংকট ব্যবহার করার ব্যাপারেও আমেরিকাকে সতর্ক করে দেন।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রশাসন চীনের ব্যাপারে সাবেক রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নীতি অনুসরণ করছে। চীন যখন তার সীমান্তসংলগ্ন দ্বীপ তাইওয়ানকে নিজ ভূখণ্ডের অবিচ্ছেদ্য অংশ বলে মনে করছে তখন বাইডেন প্রশাসন তাইওয়ানকে কোটি কোটি ডলারের সমরাস্ত্র সরবরাহ করছে। সূত্রঃ বাংলাদেশ প্রতিদিন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here