অনলাইন ডেস্কঃ মেট্রোপলিটন পুলিশ (সিএমপি) কমিশনার সালেহ মোহাম্মদ তানভীর বলেছেন, ঈদের আনন্দ সবাই উপভোগ করবে। সেই আনন্দ উপভোগের জন্য ঈদের ছুটিতে বাসা খালি করে বা পুরো বিল্ডিং খালি করে কোথাও যেতে নিরুৎসাহিত করছি। মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) বিকেলে সিএমপির মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

এসময় তিনি আরও বলেন, নিরাপত্তার জন্য কাউকে না কাউকে রাখতে হবে। বাড়ির সামনে পিছনে আলোকিত করে যাবেন। বাড়িতে সিসি ক্যামেরা থাকলে অপরাধীরা ভয় পাবে। এছাড়া পুলিশের জন্যও অপরাধী শনাক্ত করা সহজ হয়। তারপরও আমরা আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় আন্তরিক আছি। ঈদের ছুটিতে বাড়ী গেলে প্রতিবেশী থেকে খোঁজ নিবেন। পুলিশ সর্বোচ্চ নিরাপত্তা, নাইট পেট্রোল ও পুলিশের অতিরিক্ত টহলের ব্যবস্থা থাকবে।

ঈদের ছুটিতে বাড়িতে গেলে মূল্যবান জিনিসপত্র, টাকা পয়সা ব্যাংকের লকারে বা বিশ্বস্ত কারো হেফাজতে রেখে যাওয়ার পরামর্শ দিয়ে সিএমপি কমিশনার বলেন, বড় ধরনের টাকা লেনদেন করলে নগরবাসী পুলিশের সহযোগিতা নিতে পারেন। পুলিশের পক্ষ থেকে নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা হবে। ব্যাংক- মার্কেটেও সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দেওয়া হবে।

গভীর রাতে উচ্চ শব্দে গান বাজনা না করা অনুরোধ জানিয়ে সালেহ মোহাম্মদ তানভীর বলেন, ঈদে দর্শনীয় স্থানগুলো খোলা থাকবে। প্রত্যেকের আনন্দ, উৎসব আয়োজনে অংশ নেওয়ার অধিকার আছে। তবে এটি যেন কখনোই সীমা ছাড়িয়ে না যায়। রাতে উচ্চশব্দে গান বাজনার বিষয়ে পুলিশের কাছে কেউ অভিযোগ করেলে প্রয়োজনীয় আইনী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আশা করি সবাই নাগরিক দায়িত্ব কর্তব্য পালন করবেন।

সংবাদ সম্মেলনে সিএমপির পক্ষ থেকে ‘নিরাপত্তায় সতর্কতামূলক পরামর্শ’ হিসেবে বের করা একটি প্রচারপত্র সাংবাদিকদের কাছে সরবরাহ করা হয়। প্রচারপত্রে বাসা-বাড়ির নিরাপত্তায় বেশকিছু পরামর্শ দেওয়া হয়।

যা রয়েছে সেই নির্দেশনায়- 

বাসা ভাড়া দেওয়ার সময় সকল ভাড়াটিয়ার জাতীয় পচিয়পত্রসহ সঠিক ঠিকানা এবং পেশা নিশ্চিত করে বাসা ভাড়া দেওয়া, বাসার বাথরুম অথবা রান্নাঘরে ব্যবহৃত এগজস্ট ফ্যানের বাইরের অংশে লোহার গ্রিল লাগানো, বাসার জানালার বাইরের অংশে বক্সগ্রিল ব্যবহার করা, বাসার দরজায় অটোলক ব্যবহার করা, মূলব্যান জিনিস ও টাকা-পয়সা বিশ্বস্ত কারও হেফাজতে রেখে যাওয়া, প্রত্যেক ভবনে রাস্তামুখী সিসি ক্যামেরা স্থাপন করা, কাজের লোক-দরোয়ান ইত্যাদি নিয়োগের পূর্বে পরিচয় সর্ম্পকে নিশ্চিত হওয়া।

এছাড়া পরিচয় নিশ্চিত না হয়ে বাসার দরজা না খোলা, হকার-ফেরিওয়ালাকে বাসায় ঢুকতে না দেওয়া, অপরিচিত লোককে বাসার আশপাশে ঘুরতে দেখলে জিজ্ঞাসাবাদ ও ছবি তুলে রাখার পরামর্শও দেওয়া হয়েছে সিএমপির পক্ষ থেকে। সূত্রঃ বাংলাদেশ প্রতিদিন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here