অনলাইন ডেস্কঃ গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার এবং মানুষের ভোটাধিকার ও কথা বলার অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে আরেকটি যুদ্ধের জন্য প্রস্তুতি গ্রহণের আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে বৃহস্পতিবার বিকালে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচতলায় জাতীয়তাবাদী সামাজিক সাংস্কৃতিক সংস্থা-জাসাসের উদ্যোগে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিচারণে স্মারক বক্তৃতা এবং জিয়াউর রহমান ও খালেদা জিয়ার ওপর প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শনী অনুষ্ঠানে দলীয় নেতাকর্মীদের প্রতি এ আহ্বান জানান তিনি।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বিএনপির মুখপাত্র রিজভী বলেন, আমরা আজ অধিকার হারা, স্বাধীনতা হারা। কথা বলা ও চলাচল করার স্বাধীনতা- সমস্ত কিছু থেকে আমরা বঞ্চিত। মহান মুক্তিযুদ্ধের মূল চেতনা-স্পিরিট ছিল গণতন্ত্র। কিন্তু দেশে আজ সেই গণতন্ত্র নেই, মানুষের ভোটের অধিকার নেই, কথা বলার স্বাধীনতা নেই। মুক্তিযুদ্ধের সমস্ত অর্জনকে ধ্বংস করেছে এই সরকার।

তিনি বলেন, দেশে আজ এক অন্ধকারময় পরিস্থিতি বিরাজ করছে। রাত হলেই গুম-খুন-আতঙ্ক, অন্যথায় মিথ্যা মামলা দিয়ে যে কোনো মুহূর্তে কারাগারে নিয়ে যাবে। এ রকম একটা ভয়ঙ্কর অরাজকতার মধ্যে আমরা বাস করছি। একাত্তর আর বর্তমান পরিস্থিতির মধ্যে কার্যত কোনো পার্থক্য নেই। তাই গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার এবং মানুষের ভোট ও কথা বলার অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে আমাদেরকে আরেকটি যুদ্ধের জন্য প্রস্তুতি নিয়েই এগোতে হবে।

জাসাসের আহ্বায়ক চিত্রনায়ক হেলাল খানের সভাপতিত্বে এবং সদস্য সচিব জাকির হোসেন রোকনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার শাহজাহান ওমর বীরউত্তম। এতে আরও উপস্থিত ছিলেন- বিএনপি নেতা নিতাই রায় চৌধুরী, ডা. রফিকুল ইসলাম, জাসাসের ইথুন বাবু, জাহাঙ্গীর আলম রিপন, মীর সানাউল হক, আহসান উল্লাহ চৌধুরী প্রমুখ। সূত্রঃ যুগান্তর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here