অনলাইন ডেস্কঃ করোনা সংক্রমণ থেকে রেহাই পেলেও ভাইরাসের কারণে কণ্ঠস্বর নষ্ট হয়ে গেছে বাপ্পি লাহিড়ীর। দুই দিন আগে এমনই খবর রটেছিল তাকে নিয়ে। স্বাভাবিক ভাবেই সেই খবরে মুষড়ে পড়েছিলেন তার ভক্ত-অনুরাগীরা।

সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) ইনস্টাগ্রামে এ বিষয়ে মুখ খুললেন ‘ডিস্কো ড্যান্সার’ খ্যাত সুরকার লাহিড়ী। তার দাবি, ‘আমি কথা বলতে পারছি না, কণ্ঠস্বর নষ্ট হয়ে গিয়েছে– সবটাই মিথ্যা রটনা। সব শুনে আমি হতাশ। এ রকম কিচ্ছু হয়নি আমার। সবার ভালবাসা, আশীর্বাদে ভালই আছি।

সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, সব রকম সাবধানতা মেনে চলার পরেও এপ্রিল মাসে করোনা আক্রান্ত হন গায়ক। সঙ্গে সঙ্গে তার সংস্পর্শে আসা সবাইকে করোনা পরীক্ষা করার জন্য অনুরোধ জানান গায়কের পরিবার। হঠাৎ গুজব ছড়ায়, তার পর থেকে গত ৫ মাস ধরে নাকি কথা বন্ধ এই শিল্পীর। শারীরিক অবস্থারও অবনতি হয়েছে।

এর পরেই বাপ্পি লাহিড়ী ছেলে বাপ্পা সংবাদমাধ্যমকে জানান, বাবা এখনও দুর্বল। ফুসফুসে সংক্রমণ হওয়ায় ধীরে ধীরে সুস্থ হচ্ছেন। তবে যেটা রটেছে, সেটা ভুয়া। চিকিৎসকরাই তার কণ্ঠকে বিশ্রাম দিতে বলেছেন। আশা করা যায়, দুর্গাপূজার আগেই বাবা ঠিক হয়ে যাবেন।

বাবার অসুস্থতার খবর পেয়েই এপ্রিলে লস এঞ্জেলস থেকে মুম্বাই ফিরে আসেন বাপ্পি লাহিড়ীর ছেলে। বাপ্পা সংবাদমাধ্যমকে আরও জানিয়েছেন, দুর্বলতার কারণেই আপাতত হুইল চেয়ারে বসে চলাফেরা করছেন বাপ্পি। তবে পূজার সময় ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তের সঙ্গে একটি গানের রেকর্ডিংয়ের কথা আছে। সূত্রঃ যমুনা নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here