অনলাইন ডেস্কঃ আফ্রিকার দেশ বুরকিনা ফাসোতে একটি মুরগির নাম বাইসাইকেল চিকেন। সাইকেলের পেছনে বেঁধে নিয়ে বিক্রি করা হতো বলেই এমন অদ্ভুত নাম। স্বাদে আর পুষ্টিতে অনন্য এই মুরগি দেশটির নিজস্ব জাত।

বুরকিনা ফাসোর বিভিন্ন শহরের হোটেল আর রেস্তোরাঁয় এখন ভোজনরসিকদের কাছে প্রধান আকর্ষণ বাইসাইকেল চিকেন। ডিপফ্রাই কিংবা বারবিকিউ যাই হোক না কেন রসনাবিলাসে মুরগির এই জাতটির চাহিদা সবচেয়ে বেশি।

মূলত বুরকিনা ফাসোর নিজস্ব জাতের এই মুরগি বিক্রি করা হতো বাইসাইকেলের পেছনে বেঁধে নিয়ে। সেখান থেকেই এমন অদ্ভুত নামকরণ এই মুরগির। বিদেশি কিংবা জিনগত ভাবে পরিবর্তিত মুরগির চেয়ে এই বাইসাইকেল চিকেন স্বাদে এবং ঘ্রাণে অনন্য। পুষ্টিমানও অন্যান্য জাতের তুলনায় অনেক বেশি। বুরকিনা ফাসোর প্রধান দুই শহরে প্রতিদিন গড়ে ১ লাখ ৩০ হাজারের বেশি মুরগির চাহিদা রয়েছে।

ইদিরসা কিনডো নামে বুরকিনা ফাসোর এক ব্যবসায়ীর ভাষ্য, ব্রয়লারের মাংস নরম থাকে আর চর্বিও বেশি থাকে। আবার লেয়ার মুরগির মাংস অতিরিক্ত শক্ত হয়। কিন্তু আমাদের এই বাইসাইকেল চিকেনের স্বাদ এবং মাংসের গঠন একদম যথাযথ। অতিরিক্ত চর্বি থাকে না তাই এটা স্বাস্থ্যকর।

মুরগির নিজস্ব এই জাতকে জনপ্রিয় করতে নানা উদ্যোগ নিয়েছে বুরকিনা ফাসো সরকার। আন্তর্জাতিকভাবে এটিকে পরিচিত করতে নেয়া হয়েছে বিভিন্ন কার্যক্রম। এর উৎপাদন বাড়াতে প্রশিক্ষণ দেয় হচ্ছে খামারিদের।

বুরকিনা ফাসোর প্রাণী সম্পদ বিভাগের পরিচালক ইসা সাওয়াদোগো বলেন, আমাদের লক্ষ্য ছিল এই মুরগির জাতের উন্নতি ঘটানো। সেক্ষেত্রে আমরা সফল হয়েছি। এবার আমাদের লক্ষ্য এই বাইসাইকেল চিকেনের বিস্তার ঘটানো। এরইমধ্যে অনেক খামারিকে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে। এটি জনপ্রিয়তাও পেয়েছে খুব।

স্থানীয়ভাবে জনপ্রিয় এই মুরগিকে আন্তর্জাতিকভাবে পরিচিত করাতে উদ্যোগ নিয়েছে দেশটির সরকার। একেকটি পূর্ণ বয়স্ক বাইসাইকেল চিকেনের দাম ৬ থেকে ৮ ডলার। সূত্রঃ যমুনা নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here