অনলাইন ডেস্কঃ আফগানিস্তানে বড় মানবিক-আর্থ-সামাজিক বিপর্যয় এড়াতে ১০০ কোটি ডলারের বেশি সহায়তা প্যাকেজ ঘোষণা করলো ইউরোপীয় ইউনিয়ন।

মঙ্গলবার শীর্ষ অর্থনীতির দেশগুলোর জোট- জি টোয়েন্টির জরুরি বৈঠকে এলো এ ঘোষণা। ভার্চুয়াল বৈঠকে যোগ দেন বিশ্বের শীর্ষ ২০ অর্থনীতির দেশের সরকার প্রধান এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা। সেখানে মানবিক সংকট মোকাবিলায় আফগানিস্তানকে নগদ অর্থ দিতে সম্মত হন বিশ্ব নেতারা। কিন্তু কোনোভাবেই যেনো তালেবানের হাতে সেই তহবিল না পৌঁছায়- এমন অভিমত দেশগুলোর।

এর আগেই জাতিসংঘ মহাসচিব আশঙ্কা প্রকাশ করেন- শিগগিরই জরুরি পদক্ষেপ না নিলে সারাবিশ্বকে দিতে হবে চরম মূল্য। মৌলিক অধিকারগুলো সুরক্ষিত করা না গেলে উন্নত জীবনের সন্ধানে আরও মানুষ ছাড়বেন আফগানিস্তান। বাড়বে মাদক-মানব পাচার এবং সন্ত্রাসবাদ।

আগস্টে তালেবান দেশটিতে নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠার পর আফগানিস্তান ইস্যুতে এটাই জি-টোয়েন্টির প্রথম বৈঠক।

ইতালির প্রধানমন্ত্রী মারিয়ো দ্রাঘি বলেন, মানবিক সংকট মোকাবিলায় আফগানিস্তানকে জরুরি সহযোগিতা দেয়া প্রয়োজন। বিশ্ব নেতাদের একযোগে কাজ করতে হবে। জাতিসংঘকে একটি নীতিমালা নির্ধারণের আহ্বান জানাচ্ছি। কিন্তু সহায়তার জন্য তালেবানের সাথেই যোগাযোগ করতে হবে; কোনো বিকল্প নেই। তার মানে এই নয় যে- তালেবান সরকারকে অনুমোদন দিচ্ছে আন্তর্জাতিক মহল। তালেবানের কথা না বরং কাজ দেখেই নেয়া হবে সিদ্ধান্ত। সূত্রঃ যমুনা নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here